সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
তিন জেলার করতোয়ার মোহনায় ভাঙ্গন রোধে কোটি টাকা ব্যয় অপর প্রান্তে বালু মাটি কেটে সাভার পলাশবাড়ীতে মনগড়া ভাবে মাদ্রাসা ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা দেখার নেই পলাশবাড়ী মাঠেরহাট বাজার আবু বক্কর ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসা ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ গাইবান্ধায় পত্রিকা হকারদের মাঝে রিপোর্টার্স ইউনিটির “শীতবস্ত্র বিতরণ” পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানের পরেও বন্ধ হয়নি ইটভাটা পোড়ানো হচ্ছে প্ল্যাস্টিকের জুতা  গোবিন্দগঞ্জে এপেক্স ক্লাবের উদ্যোগে এতিম মেয়ের বিবাহের জন্য নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান ফুলছড়িতে আগুনে ৬টি শয়ন ঘরসহ মালামাল পুড়ে ছাই ২টি পরিবারের গোবিন্দগঞ্জে রাখালবুরুজ ফকির পাড়া গ্রামে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে পুকুরে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের অভিযোগ পলাশবাড়ীতে দুটি অবৈধ ইটভাটা ১১ লাখ টাকা জরিমানা ও বন্ধে মুচলেকা  সাদুল্লাপুরে জোনার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কুরআন শরীফ প্রদান।

ডাঃ মোজাফ্ফর আহমেদ আই কেয়ার সেন্টার,গাইবান্ধা । ০১৭৬৭-৩০৬৭০২

পলাশবাড়ীতে বিদ্যুৎ না থাকলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে একমাত্র ভরসা মোমবাতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৮ মে, ২০২১

আমার চাকুরির ছয় বছরেও দেখিনি এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জেনারেটর ! কারণবশত বিদ্যুৎ না থাকলে মোমবাতি জ্বালিয়ে চিকিৎসা সেবা সহ অফিসিয়াল কাজকর্ম করতে হয় বলে এমনটাই অভিযোগ করলেন গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত একজন চিকিৎসক! ছবিটি ৭ই মে শুক্রবার সন্ধ্যায় তোলা হয় পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের জরুরী বিভাগ থেকে ।

বর্তমান সময়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের উন্নতি ও শয্যা সংখ্যা বেশী হলেও উন্নতি হয়নি স্বাস্থ্য সেবার ও পরিবেশের । বিদ্যুৎ চলে গেলে এখনো মান্দতা আমলের মতো কুপির বদলে মোমবাতির আগুনের আলোতে হয় জরুরী বিভাগের চিকিৎসা ।

দীর্ঘদিনের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের জেনারেটর চাহিদা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেওয়ার পরে বছরের পর বছর পেরিয়ে গেলেও আজ দেওয়া হয়নি একটি জেনারেট । বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকলে রোগীদের সহ জরুরী বিভাগের অবস্থা থাকে অন্ধকার । অবশেষে কতব্যরত চিকিৎসকদের চাহিদা অনুযায়ী ব্যবস্থা করা হয় মোমবাতির আলোর।

পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের জন্য জরুরী ভিক্তিতে যেমন প্রয়োজন যেমন একটি জেনারেট তেমনি প্রয়োজন রয়েছে কর্মচারির । কর্মচারি সংকটের কারণে স্বাস্থ্য সেবা দিতে হিমশিম খেতে হয় চিকিৎসকদের । বিষয় গুলো আমলে নিয়ে দ্রুত সমাধানে স্থানীয় সচেতন মানুষ স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্য , জেলা প্রশাসক,জেলা সিভিল সার্জনসহ সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

যমুনা প্লাজা,গাইবান্ধা -01740569856

জিনিয়াস কিন্ডার গার্টেন এন্ড স্কুল ও জিনিয়াস এডুকেয়ার

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৪ অপরাহ্ণ
  • ১৬:০৩ অপরাহ্ণ
  • ১৭:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ১৯:০০ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪১ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102