সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
তিন জেলার করতোয়ার মোহনায় ভাঙ্গন রোধে কোটি টাকা ব্যয় অপর প্রান্তে বালু মাটি কেটে সাভার পলাশবাড়ীতে মনগড়া ভাবে মাদ্রাসা ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা দেখার নেই পলাশবাড়ী মাঠেরহাট বাজার আবু বক্কর ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসা ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ গাইবান্ধায় পত্রিকা হকারদের মাঝে রিপোর্টার্স ইউনিটির “শীতবস্ত্র বিতরণ” পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানের পরেও বন্ধ হয়নি ইটভাটা পোড়ানো হচ্ছে প্ল্যাস্টিকের জুতা  গোবিন্দগঞ্জে এপেক্স ক্লাবের উদ্যোগে এতিম মেয়ের বিবাহের জন্য নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান ফুলছড়িতে আগুনে ৬টি শয়ন ঘরসহ মালামাল পুড়ে ছাই ২টি পরিবারের গোবিন্দগঞ্জে রাখালবুরুজ ফকির পাড়া গ্রামে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে পুকুরে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের অভিযোগ পলাশবাড়ীতে দুটি অবৈধ ইটভাটা ১১ লাখ টাকা জরিমানা ও বন্ধে মুচলেকা  সাদুল্লাপুরে জোনার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কুরআন শরীফ প্রদান।

ডাঃ মোজাফ্ফর আহমেদ আই কেয়ার সেন্টার,গাইবান্ধা । ০১৭৬৭-৩০৬৭০২

‘যৌতুক’: গৃহবধূর শরীরে আগুন ধরিয়ে ঘরবন্দি!

পিয়ারুল ইসলাম, গাইবান্ধা
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৪ মার্চ, ২০২১

যৌতুক না পেয়ে গাইবান্ধা সদর উপজেলায় শারমিন বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূকে মারপিটের পর শরীরে আগুন ধরিয়ে ঘরে তালাবন্দি করে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শাশুড়ীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গৃহবধূর শরীরের ৫০ শতাংশ অংশ পুড়ে গেছে। ঝলছে গেছে মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন স্থান।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সন্ধ্যার পর অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ শারমিন বেগমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে নেয়া হয়।

শারমিন বেগম গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের কাবিলের বাজার এলাকার শফিউল ইসলামের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, মাত্র বছর দুয়েক আগে শারমিন বেগমের বিয়ে হয় একই এলাকার ইসমাইল হোসেনের ছেলে কোরবান আলীর সাথে। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকসহ নানা কারণে মেয়েটিকে নির্যাতন করে আসছিল স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন। সময়ে অসময়ে প্রায়ই তাকে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করা হতো।

তারা আরও জানান, যৌতুক না পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে স্বামী কোরবান আলী ও তার মা কুলসুম বেগম গৃহবধূ শারমিনকে বেধরক মারপিট করেন। এ সময় এক পর্যায়ে স্বামী কোরবান আলী উত্তেজিত হয়ে গ্যাস লাইটার দিয়ে শারমিনের পরনে থাকা ম্যাক্সিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে তাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় ঘরে তালাবন্দি করে রাখা হয়।

এদিকে, স্বামীর দেয়া আগুনে শারমিন বেগমের শরীরের পঞ্চাশ শতাংশের বেশি পুড়ে গেছে। এতে করে ঝলসে গেছে তার শরীরের বিভিন্ন স্থান।

গৃহবধূ শারমিনের স্বজনদের অভিযোগ, যৌতুকের জন্য তাদের মেয়েকে মারপিট করার পর শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। পরে তাকে হত্যা করার উদ্দ্যেশ্যে ঘরে তালা দিয়ে রাখা হয়।

ঘটনার পর বিকেলে গৃহবধূর স্বজনরা এসে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে গুরুত্বর অবস্থায় সন্ধ্যার দিকে গাইবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (রমেক) পাঠায় চিকিৎসক।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজার রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, সদর উপজেলার কাবিলের বাজার এলাকায় এক গৃহবধূর শরীরে আগুন দেয়ার কথা শুনেছি। ঘটনার সত্যতা জানার জন্য হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়।

তবে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

যমুনা প্লাজা,গাইবান্ধা -01740569856

জিনিয়াস কিন্ডার গার্টেন এন্ড স্কুল ও জিনিয়াস এডুকেয়ার

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৪ অপরাহ্ণ
  • ১৬:০৩ অপরাহ্ণ
  • ১৭:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ১৯:০০ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪১ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102