শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে এনসিটিএফ এর মাসিক সভা অনুষ্ঠিত। পলাশবাড়ীতে বসতবাড়ীতে অগ্নিকান্ডে ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি বিনা পয়সা সরকারি সকল সুবিধা পাবে প্রতিটি মানুষ পলাশবাড়ীতে স্মৃতি এমপি সাদুল্লাপুরে ৬ জুয়াড়ি গ্রেফতার রাতের আঁধারে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার নিয়ে অসহায়দের বাড়িতে সাদুল্লাপুরে ইউএনও পলাশবাড়ীতে অজ্ঞাত যানবাহনের চাকায় পিষ্ট হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আনসার মুন্সির মৃত্যু আমেরিকা প্রবাসী আবু জাহিদ নিউ এর মৎস্য ও হাঁসের খামার দখলের চেষ্টা সাদুল্লাপুরে ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চলের আয়োজনে ইফতার ও রান্না করা খাবার বিতরণ মুনিয়ার রহস্যজনক মৃত্যুর নিরপেক্ষ প্রভাবমুক্ত তদন্ত ও সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে গাইবান্ধায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত চৌতুর মাদককারবারি গোবিন্দগঞ্জে মোটরসাইকেল ফিটিং ৪৯ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক

হসপিটালে সিজার, প্রস্রাবের দ্বার কেটে নবজাতকের মৃত্যু”

সঞ্জয় সাহাঃ
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১

গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া ইউনিয়নে ডিজিটাল হসপিটালে অনভিজ্ঞ ডাক্তার দিয়ে সিজারিয়ান অপারেশনের সময় নবজাতকের প্রস্রাবের দ্বারসহ প্রসূতির জরায়ু কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। পরে বিষয়টি গোপন করতে নবজাতকের মরদেহটি কার্টুনবন্দি করে স্বজনের হাতে তুলে দেয়া হয়।

জানা গেছে- সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া ইউনিয়নে বোনারপাড়া ডিজিটাল হাসপাতালে প্রসূতি মায়ের সিজারিয়ান অপারেশনের সময় তার জরায়ু ও নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি গোপন করতে নবজাতকের মরদেহটি কার্টুনবন্দি করে স্বজনের হাতে তুলে দেয়া হয়।

প্রতিবাদ করায় স্বজনদের হাসপাতাল থেকে বের করে হাসপাতাল গেটে তালা ঝুলিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপার চেষ্টা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এমনকি সংবাদ সংগ্রহে সাংবাদিকদের হাসপাতালে প্রবেশেও বাধা দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসপাতালটি পরিদর্শন করেন । তবে এ ঘটনায় এখনও কেউ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

ভুক্তোভোগীর স্বজনদের অভিযোগ, ২৭ এপ্রিল মঙ্গলবার দুপুরে সাঘাটার রেল কলোনী থেকে প্রসূতি মোমিনাকে নেয়া হয় বোনারপাড়া ডিজিটাল হসপিটালে। পরে দুপুরেই সিজারিয়ান অপারেশনে এক কন্যা সন্তান জন্ম দেন তিনি। জন্মের কয়েক ঘণ্টা পর কার্টুনবন্দি শিশুর মরদেহ প্রসূতি মোমিনার স্বজনদের হাতে তুলে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বাড়িতে এসে নবজাতকের প্রস্রাবের দ্বারসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান কাটা দেখতে পান স্বজনরা। পরে তারা হাসপাতালে যোগাযোগ করলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের গলাধাক্কা দিয়ে বের করে দেয়।

বিষয়টি জানাজানি হলে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বোনারপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। তবে কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে হাসপাতালটি থেকে বেরিয়ে যান তারা।

নবজাতকের বাবা হাবিবুর রহমান অভিযোগ করেন, অপারেশনের সময় প্রসূতির জরায়ু কেটে ফেলা হয়। অভিজ্ঞ ডাক্তার না থাকায় নবজাতকের লিঙ্গ ও শরীরের বিভিন্ন অংশ কেটে ফেলার কারণে আমার সন্তান মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।

কোন ডাক্তারকে দিয়ে সিজার করা হয়েছে সে বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতালের কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্স জেসমিন আক্তার কথা বলতে রাজি হননি।

বোনারপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই এনায়েত কবির বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে যা করার উপজেলা নির্বাহী অফিসার করবেন। আমরা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সহযোগিতা করব।

সাঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও হাসপাতালে সাংবাদিকের সাথে কথা বলতে রাজি হননি।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০২ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
  • ১৬:৩১ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৩৩ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:২১ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102