শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১২:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ত্রাণ নয়, তিস্তা মহাপরিকল্পনার বাস্তবায়ন চায় লালমনিরহাট গৃহহীন শত শত পরিবার ভারতীয় নবজাগরণের প্রাণপুরুষ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর এর ১৩১তম প্রয়াণ দিবসে আলোচনা পলাশবাড়ীতে বালুমহাল ও ভূমি ব্যবস্থাপনা আইন অমান্য করায় জরিমানা সাদুল্লাপুরে বসতবাড়িতে আগুনে পুড়ে পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি লকডাউনেও থেমে নেই মানুষের ব্যস্ততা গাইবান্ধা সদর ইন্দারপাড় মোড়ে অসহায় মছিরনকে টিনের ঘর বিতরণ করলেন অংকুর ফাউন্ডেশন সাদুল্লাপুরে সেনাবাহিনীর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য শুভেচ্ছাঃ রংপুর রেঞ্জ অফিস সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে শামীম হোসেন যোগদানঃ গাইবান্ধায় সচেতন হচ্ছে না মানুষঃ বিধি নিষেধ অমান্যে আস্থা সুইটস সহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা গাইবান্ধায় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ ২৭ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিতঃ পুস্পস্তবক অর্পন ও কেক কাটা অনুষ্ঠিত

করনায় বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষঃ গাইবান্ধা জেলা পুলিশের উদ্যোগে বগুড়ার হাওর এলাকায় কৃষি শ্রমিক প্রেরণ!

সঞ্জয় সাহাঃ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১

দেশব্যাপী মহামারী করনা ভাইরাসের কারনে চলছে লকডাউন। বন্ধ রয়েছে অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। লকডাউনের কারনে খুলতে পারছে না তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা স্বাভাবিক ভাবে গন্তব্য স্থানে ছুটতে পারছে না গাইবান্ধা সদর উপজেলা সহ জেলার ৭ উপজেলার নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষ যেমন- কৃষক, রিক্সা চালক, ফুটপাত ব্যবসায়ী সহ অনেকে। এতে করে দিন আনা দিন খাউয়া মানুষরা পড়েছে অর্থ সংকটে।

 

প্রতিবছর এ সময় পরিবারের সদস্যদের মুখে অন্ন জোগাতে সদর উপজেলা সহ গাইবান্ধা জেলা থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের হাওর এলাকায় ধান কাটতে যান কৃষকরা। করনায় বসে না থেকে এবারো তারা যাচ্ছে ধান কাটতে।

 

এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের উজান তেওড়া গ্রামের প্রায় ৫০ জন কৃষক বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম থানার রনবসা গ্রামের উদ্দেশ্যে ৫০ জন কৃষক একটি ট্রাকে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে কাজে যাচ্ছিল। পড়ে বিষয়টি জেলা পুলিশের নজরে পড়লে ট্রাক আটকিয়ে জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম নির্দেশে জেলা পুলিশের উদ্দোগে নান্নু এ্যান্টারপ্রাইজ বাসে বগুড়ার হাওর এলাকায় ৫০জন কৃষককে ধান কাটার জন্য প্রেরন করেন গাইবান্ধা ট্রাফিক ইনচার্জ নূর আলম সিদ্দিক।

 

সুন্দরগঞ্জ এলাকার বেলকুচির কৃষক হাসান জানান- প্রতি বছর আমরা ধান কাটার জন্য বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার রনবগা গ্রামে যাই। জমির মালিক জাহিদুল আমাদেরকে কল করে নিয়ে যায়। আমরা প্রায় ৫০ জন কৃষক ধান কাটার উদ্দেশ্যে যাচ্ছি। জনপ্রতি আমরা ৫শ টাকা করে পারিশ্রমিক নেই। গতবছর নিয়েছি। আশা করি এবারো তাই পাবো।

 

করনা সম্পর্কে কথা বললে তিনি জানান- আমাদের চড়ে বিদ্যুৎ নেই। টিভি নেই। তাই আমরা জানিনা করনায় প্রশাসন এত নিয়ম করেছে। গৃহস্থ আমাদের ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে পুলিশ আমাদের বাধা দেয় এবং বাস দেয় যাওয়ার জন্য।

গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম দৈনিক নতুন দিন পত্রিকার প্রতিবেদক কে জানান- ধান কাটার মওসুম শুরু হয়েছে। এ সময় অনেক ধান কাটার শ্রমিক দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ধান কাটতে যায় নওগা, বগুড়া, মৌলভিবাজার সহ বিভিন্ন স্থানে। গতবারো করনার সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদেরকে আমরা বিভিন্ন জায়গায় পাঠিয়েছি। আমরা গতবারের মতো স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদেরকে মাস্ক দিয়ে বাসের মাধ্যমে ধান কাটা এলাকায় পাঠানো হচ্ছে। প্রতিবছর জেলা পুলিশের উদ্দোগে তারা যায়। এবারো যেন যেতে পারে এটা নিশ্চিত করছি। এটি অব্যাহত থাকবে।

 

বিডি গাইবান্ধা/

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০৪ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৮ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৪৯ অপরাহ্ণ
  • ২০:১১ অপরাহ্ণ
  • ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102