রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধার বিশিষ্ট জুতা ব্যবসায়ী হাসান আলীকে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত!! সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম কবিরের ছোট ভাই ফিরোজের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন সুদের টাকা দিতে ব্যর্থঃ গাইবান্ধা শহরের আওয়ামীলীগ নেতা কুখ্যাত সুদারু মাসুদ রানার বলি হলেন জুতা ব্যবসায়ী হাসান!! সাদুল্লাপুরের রসুলপুর রাস্তাটির বেহাল অবস্থা সুন্দরগঞ্জে মসজিদ কমিটির পদ নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৭; থানায় লিখিত অভিযোগ কু-নাম করে সুনামগঞ্জের পথে দুর্নীতির বরপুত্র শিক্ষা কর্মকর্তা আঃ ছালাম সাদুল্লাপুরে কম্বাইন হারভেস্টার বিতরণ করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান বিপ্লব বাঘাইছড়িতে হত্যা-দুর্নীতির দায় এড়াতে বদলির তদবিরে ব্যস্ত বিতর্কিত সেই পিআইও নুরুন্নবী জাপানের “বেষ্ট পেপার অ্যাওয়ার্ড’’পেলেন হাবিপ্রবি অধ্যাপক ড. রাজু করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলাঃ গাইবান্ধায় ন্যায্যমূল্যে ভ্রাম্যমান দুধ ও ডিম বিক্রির উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক মতিন!!

সাদুল্লাপুরে একমাসেও উদ্ধার হয়নি মাদ্রসাছাত্রী জান্নাতী গ্রেফতার হয়নি অভিযুক্ত আসামিরা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৬ মার্চ, ২০২১

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে অপহরণের এক মাস অতিবাহিত হলেও উদ্ধার হয়নি জান্নাতী আক্তার নামে অষ্টম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী। এছাড়া অপহরণকারী রহিম মিয়াসহ তার সহযোগি বোন জামাই সুজা মিয়াকেও এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এতে মেয়েকে উদ্ধার করতে না পেরে চরম আতষ্ক ও হতাশায় ভুগছেন বাবা-মাসহ স্বজনরা।

এরআগে, গত ২৩ ফেব্রুয়ারী সাদুল্লাপুর উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ জামুডাঙ্গা গ্রামের বাড়ির সামন থেকে জান্নাতীকে অপহরণ করে পালিয়ে যায় প্রতিবেশি এক সন্তনের জনক রহিম মিয়া। রহিম মিয়া (২৮) একই গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে ও সহযোগি সুজা মিয়া হবিবর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় জান্নাতীর বাবা জাহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে গত ৮ মার্চ রহিম মিয়া ও সুজা মিয়াকে আসামি করে সাদুল্লাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

ছাত্রীর স্বজনদের অভিযোগ, রহিম মিয়া বিবাহিত ও এক সন্তান থাকা সত্বেও এবারেই অষ্টম শ্রেণিতে ওঠা জান্নাতীর উপর কৃ-দৃষ্টি পড়ে। আগে থেকেই জান্নাতীকে উত্যাক্ত করতো রহিম। বিষয়টি জানিয়েও তার পরিবার ব্যবস্থা নেয়নি। উল্টো রহিম ক্ষিপ্ত হয়ে জান্নাতীকে অপহরণের হুমকি-ধামকি দিতো। গত ২৩ ফেব্রুয়ারী সকালে বাড়ির সামনের পাকা রাস্তা থেকে জান্নাতীকে জোরপূর্বক সিএনজিতে উঠিয়ে অপহরণ করে পালিয়ে যায় রহিম। এরপর বিভিন্ন ভাবে খোঁজাখুজি করেও তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

জান্নাতীর বাবা জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘রহিমের নানা অপকর্মের কারণে তার স্ত্রী কয়েকমাস আগে বাবার বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেয়। পরিকল্পিতভাবে রহিম তার মেয়েকে অপহরণের পর অজ্ঞাত জায়গায় আটকিয়ে রেখেছে। তার অভিযোগ, রহিমের পরিবারের লোকজন মামলা না করাসহ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে। মামলা হলেও একমাসেও মেয়েকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। গ্রেফতার হয়নি কোন আসামী। মেয়ে বেঁচে আছে নাকি মরে গেছে তা নিয়ে এখন চরম আতষ্ক ও হতাশায় দিন কাটছে বলেও জানান তিনি’।

এ বিষয়ে সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদ রানা মূঠফোনে জানান, অপহরণের পর থেকেই মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর চালাচ্ছে। এছাড়া ছাত্রীকে উদ্ধারে বিভিন্ন থানায় বার্তা পাঠানো হয়েছে। আশা করি, দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের অবস্থান নির্নয় করে ওই ছাত্রীকে উদ্ধারসহ আসামিদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৩ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২২ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৩৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪১ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102