বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গোবিন্দগঞ্জে এক মর্মান্তিক সড়ক দুঘর্টনায় একই পরিবারের ৪ অটোভ্যান যাত্রী নিহত সাদুল্লাপুরে লটারীর মাধ্যমে যত্ন প্রকল্প (আইএসপিপি) এর ভাতাভোগী নির্বাচন করনা ভাইরাসঃ লকডাউন প্রথমদিন গাইবান্ধায় সচেতনতারোধে মানুষের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করলেন পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম!! গাইবান্ধায় গরীব অসহায় ব্যাক্তিদের মাঝে আস সুন্নাহ ফাউন্ডেশন ইফতার সামগ্রী বিতরন!! গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় সাদুল্যাপুরের কামারপাড়ার প্রসুতির মৃত্যুঃ দায় এড়াতে পারেনা সেই ডাক্তার!! শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তুকি দিয়ে সকল শিক্ষার্থীর বেতন ফি মওকুফ সহ ৩দফা দাবিতে- মিছিল ও সমাবেশ সংবাদ সম্মেলনে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবী পরিবারেরঃ সাদুল্লাপুরে সিএনজি মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে যুবক নিহত গাইবান্ধায় সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিক সুমন মন্ডলের উপর হামলার ঘটনায় ২ পেশাদার জুয়ারি গ্রেফতার সাদুল্লাপুরে বিনামূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ

‘যৌতুক’: গৃহবধূর শরীরে আগুন ধরিয়ে ঘরবন্দি!

পিয়ারুল ইসলাম, গাইবান্ধা
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৪ মার্চ, ২০২১

যৌতুক না পেয়ে গাইবান্ধা সদর উপজেলায় শারমিন বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূকে মারপিটের পর শরীরে আগুন ধরিয়ে ঘরে তালাবন্দি করে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শাশুড়ীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গৃহবধূর শরীরের ৫০ শতাংশ অংশ পুড়ে গেছে। ঝলছে গেছে মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন স্থান।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সন্ধ্যার পর অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ শারমিন বেগমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে নেয়া হয়।

শারমিন বেগম গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের কাবিলের বাজার এলাকার শফিউল ইসলামের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, মাত্র বছর দুয়েক আগে শারমিন বেগমের বিয়ে হয় একই এলাকার ইসমাইল হোসেনের ছেলে কোরবান আলীর সাথে। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকসহ নানা কারণে মেয়েটিকে নির্যাতন করে আসছিল স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন। সময়ে অসময়ে প্রায়ই তাকে শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করা হতো।

তারা আরও জানান, যৌতুক না পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে স্বামী কোরবান আলী ও তার মা কুলসুম বেগম গৃহবধূ শারমিনকে বেধরক মারপিট করেন। এ সময় এক পর্যায়ে স্বামী কোরবান আলী উত্তেজিত হয়ে গ্যাস লাইটার দিয়ে শারমিনের পরনে থাকা ম্যাক্সিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে তাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় ঘরে তালাবন্দি করে রাখা হয়।

এদিকে, স্বামীর দেয়া আগুনে শারমিন বেগমের শরীরের পঞ্চাশ শতাংশের বেশি পুড়ে গেছে। এতে করে ঝলসে গেছে তার শরীরের বিভিন্ন স্থান।

গৃহবধূ শারমিনের স্বজনদের অভিযোগ, যৌতুকের জন্য তাদের মেয়েকে মারপিট করার পর শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। পরে তাকে হত্যা করার উদ্দ্যেশ্যে ঘরে তালা দিয়ে রাখা হয়।

ঘটনার পর বিকেলে গৃহবধূর স্বজনরা এসে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে গুরুত্বর অবস্থায় সন্ধ্যার দিকে গাইবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (রমেক) পাঠায় চিকিৎসক।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজার রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, সদর উপজেলার কাবিলের বাজার এলাকায় এক গৃহবধূর শরীরে আগুন দেয়ার কথা শুনেছি। ঘটনার সত্যতা জানার জন্য হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়।

তবে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২৪ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102