বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় লাইসেন্সবিহীন ফার্মেসি ব্যবসা জমজমাটঃ নেই প্রশিক্ষিত ফার্মাসিস্ট? প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা সচেতন নাগরিকের!! ধান কাটতে গাইবান্ধার ৭৩ কৃষি শ্রমিক কুমিল্লা ও নন্দীগ্রামে পলাশবাড়ী হাসপাতালের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার ও নার্স চাইলেন পৌর মেয়র জননেতা বিপ্লব গোবিন্দগঞ্জে পানির ট্যাঙ্কে পড়ে দুই সহোদরের মৃত্যু গাইবান্ধার স্কুলছাত্রী অপহরণের তিনদিন পর পলাশবাড়ী থেকে উদ্ধারঃ বাবলা মিয়া নামে একজন গ্রেফতার!! করনায় অসচেতন মানুষঃ মানছেনা স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউন; ট্রাফিক ও পুলিশের তদারকি!! করনায় বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষঃ গাইবান্ধা জেলা পুলিশের উদ্যোগে বগুড়ার হাওর এলাকায় কৃষি শ্রমিক প্রেরণ! গোবিন্দগঞ্জে প্রতারক স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন গোবিন্দগঞ্জে আহত ট্রলি শ্রমিক জিল্লুরের চিকিৎসায় সাহায্যের আবেদন সরকারী পুকুর খননের সময় দেড়শ বছরের পুরাতন বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার

“লিঙ্গ রুপে প্রকাশিত হয়ে পাপ নাশ করেন দেবাদিদেব!”

সুমন সেন বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ, ২০২১

মহাশিবরাত্রি ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণ পক্ষের চতুর্দশী তিথিতে পালিত হয়। মহাশিবরাত্রি হল হিন্দুধর্মের সর্বোচ্চ আরাধ্য দেবাদিদেব মহাদেব ‘শিবের মহা রাত্রি’। অন্ধকার আর অজ্ঞতা দূর করার জন্য এই ব্রত পালিত হয়।হিন্দু মহাপুরাণ তথা শিবমহাপুরাণ অনুসারে এইরাত্রেই শিব সৃষ্টি, স্থিতি ও প্রলয়ের মহা তান্ডব নৃত্য করেছিলেন । আবার এইরাত্রেই শিব ও পার্বতীর বিবাহ হয়েছিল । এর নিগুঢ় অর্থ হল শিব ও শক্তি তথা পুরুষ ও আদিশক্তি বা পরাপ্রকৃতির মিলন। এই মহাশিবরাত্রিতে শিব তার প্রতীক লিঙ্গ তথা শিবলিঙ্গ রূপে প্রকাশিত হয়ে জীবের পাপনাশ ও মুক্তির পথ দিয়েছিলেন।
নাগেশ্বরী উপজেলার ছায়া সুনিবিড় শান্তির নীড় বেরুবাড়ী ইউনিয়নের খামার নকুলা গ্রামের সেন পাড়ায় শ্রী কার্ত্তিক সেনের বাড়ীতে ২য় বারের মতো মহা ধুমধামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে শিবচতুর্দশী। সকাল বেলায় প্রতিমা রংয়ের মাধ্যমে শুরু হয় পুজার আনুষ্ঠানিকতা।তারপর ঢাকের তালে প্রতিমা বরণ করে শুরু হয় পুজার উপাচার।বিকেলবেলা ৩.১৪ মিনিটে পুজার লগ্ন শুরু হলে পুরোহিতের (নকুল চন্দ্র) মন্ত্র, ঢাকীর ঢাকের তাল,শঙ্খ, কাসি,ঘন্টা,ধূপ-দ্বীপ এবং শতশত উলুধ্বনির মধ্য দিয়ে শুরু হয় পুজার মুল পর্ব।
পূজা শেষে আত্মীয় স্বজনরা এবং এলাকাবাসীদের মধ্যে নিজ সম্প্রদায়ের অনুগামীরা পুঞ্জালি ও শিবের মাথায় দুধ ও দই দিয়ে নিজেদের পরিবার ও ভালোবাসার মানুষ গুলোর জীবনের কল্যাণ কামনা করেন।এ বিষয়ে পূজার মুল মালিক ‘কার্তিক সেন’ বলেন “শিব চতুর্দশী পালন করলে মনে প্রশান্তি আসে এবং ভক্তগনের চরণ ধুলি পাওয়া যায়।সর্বোপরি কথা হলো শিব চতুর্দশী পালন করলে সুখ শান্তি এবং সমৃদ্ধি একসাথে লাভ হয়।”
শিবচতুর্দশী পূজায় রাত্রি জাগরণ আবশ্যক। এই বিষয় নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন ” আত্মীয় স্বজন,এলাকাবাসীদের মধ্যে ধর্মীয় বিশ্বাসের সৃষ্টি করার জন্য,ধর্ম সম্পর্কে কুসংস্কার বাদ দিয়ে সংস্কার গ্রহন করার জন্য স্থানীয় কীর্তনীয়া মনোরঞ্জন সরকার ও তার দল নিতানন্দ সম্প্রদায় কে নিমন্ত্রণ করা হয়েছে।তারা মুলত ধর্ম তত্ত্ব নিয়ে আলোচনা করবে।”কার্তিক সেনের স্ত্রী শান্তনা রানী বলেন “প্রতি বছর ছোট খাটো অনুষ্ঠান করে মানুষের দেখা পাওয়া ও সেবা করার যেন সুযোগ দেয় ভগবান।” আগামীকাল সকাল ১০ ঘটিকায় ভূরিভোজন করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০১ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২৬ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৩ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102