মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ১১:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় লাইসেন্সবিহীন ফার্মেসি ব্যবসা জমজমাটঃ নেই প্রশিক্ষিত ফার্মাসিস্ট? প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা সচেতন নাগরিকের!! ধান কাটতে গাইবান্ধার ৭৩ কৃষি শ্রমিক কুমিল্লা ও নন্দীগ্রামে পলাশবাড়ী হাসপাতালের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার ও নার্স চাইলেন পৌর মেয়র জননেতা বিপ্লব গোবিন্দগঞ্জে পানির ট্যাঙ্কে পড়ে দুই সহোদরের মৃত্যু গাইবান্ধার স্কুলছাত্রী অপহরণের তিনদিন পর পলাশবাড়ী থেকে উদ্ধারঃ বাবলা মিয়া নামে একজন গ্রেফতার!! করনায় অসচেতন মানুষঃ মানছেনা স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউন; ট্রাফিক ও পুলিশের তদারকি!! করনায় বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষঃ গাইবান্ধা জেলা পুলিশের উদ্যোগে বগুড়ার হাওর এলাকায় কৃষি শ্রমিক প্রেরণ! গোবিন্দগঞ্জে প্রতারক স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন গোবিন্দগঞ্জে আহত ট্রলি শ্রমিক জিল্লুরের চিকিৎসায় সাহায্যের আবেদন সরকারী পুকুর খননের সময় দেড়শ বছরের পুরাতন বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার

গাইবান্ধায় ১০ হাজার টাকা অনুদানের গুজবে কম্পিউটারের দোকানগুলোতে শিক্ষার্থীদের ভিড়

আমিরুল ইসলাম কবির
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১

শিক্ষার্থীদের ১০ হাজার টাকা অনুদান দেবে সরকার। এমন গুজবে নিবন্ধন করার জন্য গাইবান্ধার ৭ উপজেলায় শিক্ষার্থীরা ফরম পূরণে মহাব্যস্ত হয়ে পড়ে শহরের কম্পিউটারের দোকানে গুলোতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে।

এই বিষয়ে কেউ অন্যের মুখে শুনে,কেউবা ফেসবুকে বন্ধুদের কাছে শুনেছেন ১০ হাজার টাকা অনুদানের কথা। এরপর স্কুলের স্যারদের কাছে গেলে তারা কিছু বলতে পারেননি বলে জানান অনেকে। অথচ প্রতিষ্ঠানের প্রত্যয়নসহ বিভিন্ন কাগজপত্র নিয়ে নিবন্ধনের জন্য অভিভাবকরাসহ কম্পিউটারের দোকানে শিক্ষার্থীদের ভিড় দেখা যায়। শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাইলে তারা কেউ বলেন, ল১০ হাজার টাকা করে করোনা ভাতা দেয়া হবে সেজন্য রেজিস্ট্রেশন করছি।

আবার কেউ বলেন,উপবৃত্তির জন্য নিবন্ধন করতে এসেছি আবার কেউ জানায় সরকারি সহায়তার জন্য আবেদন করছি।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়,করোনা মহামারিতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর-মাউশি’র আওতায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের অনুদান প্রদানের বিজ্ঞপ্তিতে টাকার পরিমাণ উল্লেখ নেই। কিন্তু বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব ছড়ানো হয় সবাইকে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া হবে। সেই গুজবের রেশ ধরে গাইবান্ধা সদর,সাদুল্লাপুর,পলাশবাড়ী,
গোবিন্দগঞ্জ,সুন্দরগঞ্জ,সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দিনভর এমনকি রাতেও নিবন্ধনের জন্য কম্পিউটারের দোকান গুলোতে ভীড় করে শত শত ছেলে মেয়ে।

মাউশি ১৮ জানুয়ারি এক বিজ্ঞপ্তিতে অনুদানের জন্য মাউশির ওয়েবসাইটে আবেদন ফরমে আবেদন করতে বলা হয়েছে। ওই বিজ্ঞপ্তিতে সবার জন্য সরকারি অনুদান দেয়ার কথা বলা নেই। বলা আছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মেরামত ও সংস্কার,আসবাবপত্র ক্রয়সহ অন্যান্য উন্নয়ন কাজের জন্য, শিক্ষক-কর্মচারীরা তাদের দুরারোগ্য ব্যাধি ও দৈব দুর্ঘটনায় সহায়তার জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে শিক্ষার্থীদের এ বিশেষ অনুদান দেয়ার ক্ষেত্রে দুঃস্থ,প্রতিবন্ধী,অসহায়, রোগাক্রান্ত,গরীব,মেধাবী, অনগ্রসর সম্প্রদায়ের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দেয়ার নির্দেশনা রয়েছে।

এই অনুদানের আবেদনের সময়সীমা ছিল ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। মাউশি সেই আবেদনের সময়সীমা বাড়িয়েছে ৭ মার্চ পর্যন্ত। ২৮ ফেব্রুয়ারি সময় বাড়ানোরও ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে,বর্তমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বিবেচনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,শিক্ষক কর্মচারী ও ছাত্র-ছাত্রীদের অনুদান প্রদানের লক্ষ্যে অনলাইনে আবেদনের সময়সীমা আগামী ৭ মার্চ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলো।

এদিকে,মাউশির বিজ্ঞপ্তিতে অনুদানের টাকার পরিমাণ উল্লেখ না থাকলেও ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মাউশি থেকে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়ার কথা ছড়িয়ে পড়েছে। এই অনুদানের টাকা পাওয়ার জন্য করোনা পরিস্থিতিতে বন্ধ থাকা উল্লেখিত উপজেলার অনেক স্কুল- কলেজগুলোতে প্রত্যয়নপত্র নেয়ার জন্য ভীড় করে শত শত শিক্ষার্থী। দিনভর এমনকি রাতেও দেখা গেছে কম্পিউটারে টাইপ করা প্রত্যয়নপত্রের ফরম পুরণে ব্যস্ত ছাত্র-ছাত্রীরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান নয়ন জানান,এটি একটি গুজব।
সচেতন নাগরিকরা বলছেন, কারা এই আবেদনের জন্য যোগ্য তা স্পষ্ট করা দরকার।√#

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০১ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২৬ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৩ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102