বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় লাইসেন্সবিহীন ফার্মেসি ব্যবসা জমজমাটঃ নেই প্রশিক্ষিত ফার্মাসিস্ট? প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা সচেতন নাগরিকের!! ধান কাটতে গাইবান্ধার ৭৩ কৃষি শ্রমিক কুমিল্লা ও নন্দীগ্রামে পলাশবাড়ী হাসপাতালের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার ও নার্স চাইলেন পৌর মেয়র জননেতা বিপ্লব গোবিন্দগঞ্জে পানির ট্যাঙ্কে পড়ে দুই সহোদরের মৃত্যু গাইবান্ধার স্কুলছাত্রী অপহরণের তিনদিন পর পলাশবাড়ী থেকে উদ্ধারঃ বাবলা মিয়া নামে একজন গ্রেফতার!! করনায় অসচেতন মানুষঃ মানছেনা স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউন; ট্রাফিক ও পুলিশের তদারকি!! করনায় বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষঃ গাইবান্ধা জেলা পুলিশের উদ্যোগে বগুড়ার হাওর এলাকায় কৃষি শ্রমিক প্রেরণ! গোবিন্দগঞ্জে প্রতারক স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন গোবিন্দগঞ্জে আহত ট্রলি শ্রমিক জিল্লুরের চিকিৎসায় সাহায্যের আবেদন সরকারী পুকুর খননের সময় দেড়শ বছরের পুরাতন বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার

১৪ফেব্রুয়ারি স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট গাইবান্ধার মিছিল ও সমাবেশ!!

সঞ্জয় সাহাঃ
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

১৪ ফেব্রুয়ারি স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র প্রতিরোধ দিবস। এই দিনেই সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে শুরু হয় ছাত্র আন্দোলন, কালক্রমে যেটি গণআন্দোলনে রূপ নিয়েছিল।

 

তখন জেনারেল এরশাদের সামরিক সরকারের বিতর্কিত শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা প্রতিরোধ গড়ে তোলে। তখনকার শিক্ষামন্ত্রী ড. মজিদ খান ১৯৮২ সালের ২৩শে সেপ্টেম্বর একটি নতুন শিক্ষানীতির প্রস্তাব করেন। সেখানে প্রথম শ্রেণী থেকেই আরবি ও দ্বিতীয় শ্রেণী থেকে ইংরেজি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়। উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য মাপকাঠি করা হয় মেধা অথবা পঞ্চাশ শতাংশ ব্যয়ভার বহনের ক্ষমতা। এই নীতি ঘোষণার পর থেকেই আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৮৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারিতে স্মারকলিপি দিতে শিক্ষার্থীরা মিছিল করে সচিবালয়ের দিকে যাবার সময় পুলিশ গুলি চালায়। এতে জাফর,কাঞ্চন, জয়নাল, দীপালি সাহা সহ নিহত হন অন্তত ১০জন। সেদিন থেকেই এই দিনটি পালিত হয়ে আসছে স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র প্রতিরোধ দিবস হিসেবে।

 

এ উপলক্ষে ১৪ই ফেব্রুয়ারী সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে বেলা ১২টায় ছাত্র সমাবেশ ও জেলা শহরে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সমাবেশে সংগঠনের জেলা সভাপতি পরমানন্দ দাসের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি মাহবুব আলম মিলন, সাধারণ সম্পাদক রাহেলা সিদ্দিকা, মাছুদা আক্তার, কলি রানী বর্মন, উম্মে নিলুফা তিন্নি প্রমূখ।

বক্তারা বলেন- ১৪ফেব্রুয়ারির প্রকৃত ইতিহাসকে ভুলিয়ে দিয়ে এই ইতিহাসকে বিকৃত করে বিভিন্ন ব্যবসায়ী গোষ্ঠী তাদের স্বার্থ হাসিলের জন্য এই দিনটিকে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস নামে আখ্যায়িত করে এবং এই দিনটিকে কেন্দ্র করে প্রেম-ভালোবাসার নামে যুব সমাজের মাঝে উন্মাদনা সৃষ্টি করবে,তাদেরকে নৈতিকভাবে অধঃপতনের দিকে ঠেলে দিচ্ছে । তাই সেদিন ছাত্রদের অধিকার রক্ষায় যারা জীবন দিয়েছিলেন তাদের সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে আজকে ছাত্র সমাজের মাঝে ১৪ফেব্রুয়ারির সংগ্রামী চেতনাকে নিয়ে যাওয়ার দাবি, পাঠ্যপুস্তকে বড় বড় মনীষীদের জীবন সংগ্রাম অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান। সেই সাথে বক্তারা সর্বজনীন-বিজ্ঞানভিত্তিক-সেক্যুলার-গণতান্ত্রিক-একই ধারার শিক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা এবং শিক্ষার বেসরকারিকরণ-বাণিজ্যিকীকরণ ও সাম্প্রদায়িকী করণের বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

বিডি গাইবান্ধা/

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০১ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২৬ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৩ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102