রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধার বিশিষ্ট জুতা ব্যবসায়ী হাসান আলীকে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত!! সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম কবিরের ছোট ভাই ফিরোজের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন সুদের টাকা দিতে ব্যর্থঃ গাইবান্ধা শহরের আওয়ামীলীগ নেতা কুখ্যাত সুদারু মাসুদ রানার বলি হলেন জুতা ব্যবসায়ী হাসান!! সাদুল্লাপুরের রসুলপুর রাস্তাটির বেহাল অবস্থা সুন্দরগঞ্জে মসজিদ কমিটির পদ নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৭; থানায় লিখিত অভিযোগ কু-নাম করে সুনামগঞ্জের পথে দুর্নীতির বরপুত্র শিক্ষা কর্মকর্তা আঃ ছালাম সাদুল্লাপুরে কম্বাইন হারভেস্টার বিতরণ করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান বিপ্লব বাঘাইছড়িতে হত্যা-দুর্নীতির দায় এড়াতে বদলির তদবিরে ব্যস্ত বিতর্কিত সেই পিআইও নুরুন্নবী জাপানের “বেষ্ট পেপার অ্যাওয়ার্ড’’পেলেন হাবিপ্রবি অধ্যাপক ড. রাজু করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলাঃ গাইবান্ধায় ন্যায্যমূল্যে ভ্রাম্যমান দুধ ও ডিম বিক্রির উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক মতিন!!

অবশেষে দুর্নীতির ১০ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিলেন ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা

আমিরুল ইসলাম কবির
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

অবশেষে দুর্নীতির ১০ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিলেন পলাশবাড়ী উপজেলা ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুস সালাম। তিনি শিক্ষা বিভাগের বেশ কয়েকটি খাত থেকে সম্ভাব্য ৩০ লক্ষ টাকার অধিক আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়। সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন পলাশবাড়ী প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি ফেরদাউছ মিয়া। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন জাতীয়,আঞ্চলিক ও অনলাইন পত্রিকায় ফলাও করে ওই শিক্ষা কর্মকর্তার অপ্রতিরোধ্য দুর্নীতি-অনিয়মের ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশিত হয়।

অভিযোগের বিষয়ে প্রকাশিত খবরের ভিত্তিতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়। এ ব্যাপারে খোদ শিক্ষা বিভাগ নড়ে চড়ে বসে।পরবর্তিতে একাধিক তদন্ত কমিটি গঠন করেন খোদ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

চলমান তদন্ত কার্যক্রম চলার আগে ও পরে প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) একেএম আব্দুস ছালাম অভিযোগ দাখিলের পর অবস্থা বেগতিক দেখে অবশেষে ৯ লাখ ৩০ হাজার ২শ ৫০ টাকা ট্রেজারী মূলে সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান করেন। কিন্তু উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) হিসাবে এ উপজেলায় এখনো বহাল তবিয়তে রয়েছেন।

শিক্ষা অধিদপ্তরের গঠিত তদন্ত কমিটির নিকট লিখিত বক্তব্যে শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুস ছালাম উল্লেখ করেন,বিধি বিধান লঙ্ঘন করে বিভিন্ন ভাবে উত্তোলিত ৯ লক্ষ ৩০ হাজার ২শ ৫০ টাকা সরকারি কোষাগারে ইতোমধ্যেই ফেরত প্রদান করেছেন।

এদিকে ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পুঞ্জীভূত একাধিক অভিযোগ থাকার পরও তিনি ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা অফিসার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। এহেন স্পর্শকাতর বিষয়টি নিরসনে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের রহস্যজনক ভূমিকা নিয়ে সচেতন জনমনে নানা জল্পনা কল্পনাসহ মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।
তারা মনে করেন দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের দূর্নীতির সুয়োগদানে নেপথ্যের কারিগর যেই হোকনা কেন তারাও দুর্নীতির ঊর্ধ্বে নন। ওই কর্মকর্তাসহ দুর্নীতি সংশ্লিষ্ট জেলা শিক্ষা অফিসের জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনে শিক্ষা বিভাগের উর্ধতন কর্তা ব্যক্তিদের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপ গ্রহন প্রয়োজন বলে মনে করেন এলাকার সচেতন মহল।

অভিযোগকারী ফেরদাউছ মিয়া বলেন,আত্মসাতকৃত ৩০ লাখ টাকার মধ্যে ১০ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান করেছেন শিক্ষা অফিসার আব্দুল ছালাম। ভূক্তভোগি মহলের অভিমত সরকারি কোষাগারে টাকা জমা প্রদানের বিষয়টিতে প্রতীয়মান হয় ওই কর্মকর্তা একজন দুর্নীতিবাজ।অভিযোগকারী বলেন,তাঁর বিরুদ্ধে যথাযথ বিভাগীয় পদক্ষেপ গ্রহনসহ শাস্তিমুলক বদলীর দাবি জানান ।

একটি নির্ভরযোগ্য সুত্র জানায়,গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুস ছালাম এর এহেন নানামুখী দুর্নীতির বিরুদ্ধে রংপুর বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় থেকে পৃথক একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান নয়ন এ বিষয়ে সাংবাদিকদের জানান,রংপুর বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় থেকে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসন বরাবরে প্রেরীত পত্র মোতাবেক তিনি ইতোমধ্যেই তদন্তের নির্দেশ প্রাপ্ত হয়েছেন। শিগগিরই তদন্তের কাজ শুরু করবেন বলে জানান তিনি।√#

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৩ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২২ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৩৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪১ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102