বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গোবিন্দগঞ্জে এক মর্মান্তিক সড়ক দুঘর্টনায় একই পরিবারের ৪ অটোভ্যান যাত্রী নিহত সাদুল্লাপুরে লটারীর মাধ্যমে যত্ন প্রকল্প (আইএসপিপি) এর ভাতাভোগী নির্বাচন করনা ভাইরাসঃ লকডাউন প্রথমদিন গাইবান্ধায় সচেতনতারোধে মানুষের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করলেন পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম!! গাইবান্ধায় গরীব অসহায় ব্যাক্তিদের মাঝে আস সুন্নাহ ফাউন্ডেশন ইফতার সামগ্রী বিতরন!! গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় সাদুল্যাপুরের কামারপাড়ার প্রসুতির মৃত্যুঃ দায় এড়াতে পারেনা সেই ডাক্তার!! শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তুকি দিয়ে সকল শিক্ষার্থীর বেতন ফি মওকুফ সহ ৩দফা দাবিতে- মিছিল ও সমাবেশ সংবাদ সম্মেলনে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবী পরিবারেরঃ সাদুল্লাপুরে সিএনজি মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে যুবক নিহত গাইবান্ধায় সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিক সুমন মন্ডলের উপর হামলার ঘটনায় ২ পেশাদার জুয়ারি গ্রেফতার সাদুল্লাপুরে বিনামূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ

অন্যের কথায় কান না দিয়ে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য এগিয়ে যাও

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১

আতিকা রহমানঃ

যারা এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছো তাদের সবার প্রতি অভিনন্দন ও ভালোবাসা রইলো।তোমরা যাতে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় ভালো ফল করতে পারো, ভালো প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযোগ পাও সেই শুভ কামনা ও দোয়া রইলো।।

তোমাদের উদ্দ্যেশ্যে বললো, লোকজন অটোপাশ নিয়ে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে, তোমাদের নিয়ে আজে বাজে কথা বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টিটকারি করছে। ফেসবুকে ট্রল করছে তাদের কথায় কান না দিয়ে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য এগিয়ে যাও। বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার জন্য মন দিয়ে লেখাপড়া করো।

এসব সমালোচনার জন্য মন খারাপ করার দরকার নাই। কেননা তোমরা করোনা ভাইরাসের মতো দেশীয় এবং বৈশ্বিকভাবে এক মহা দুর্যোগের শিকার। এর জন্য তোমরা নিজেরা দায়ী নও। আর তোমাদের রেজাল্ট তো জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে তৈরী হয়েছে।

হীনমন্যতায় ভোগার কারন নেই,, তোমাদের জীবন শুধু এইচএসসিতে সীমাবদ্ধ নয় জীবনের বড় অধ্যায়গুলো সামনে পরে আছে। এদেশে মানুষ রাস্তায় হোঁচট খেয়ে পরে রক্তাক্ত হতে দেখেও হাসে,, তামাশা করে। তাই তাদের কথায় নিজেদের মনোবল ভেঙ্গে ফেলবেনা।

যারা অটোপাস বলে ছেলেমেয়েদের মনে আঘাত দিয়ে কথা বলছেন তারা কি চান? কি করলে ভালো হতো!! আপনাদের সমালোচনা বন্ধ করতে সরকারের কি উচিত ছিলো করোনা পরিস্থিতি বা লকডাউনের মধ্যে এপ্রিল , মে, জুন বা জুলাই আগষ্টে প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থীকে পরীক্ষার হলে আনা।

আর এদের পরীক্ষার নেয়ার জন্য অভিভাবক , শিক্ষক, ম্যাজিষ্ট্রেট পুলিশসহ সারাদেশে আরও ৫ লাখ লোকজন এক জায়গায় করা?নাকি পরীক্ষা দিয়ে জনসমাগম হলে সেখান থেকে সংক্রমন ছড়িয়ে কোন ভয়াবহ পরিস্থিতি হলে, আক্রান্তের হার বাড়লে, কয়েক হাজার শিক্ষার্থী মারা গেলে আপনাদের ভালো লাগতো??

নাকি ১ বছর পর পরীক্ষা নিয়ে তাদের এক থেকে দেড় বছর শিক্ষাজীবন পিছিয়ে দেয়াটা যৌক্তিক হতো!ছেলেমেয়েদের এভাবে কটাক্ষ করে কথা না বলে, মনে কষ্ট না দিয়ে মনোবল ভেঙ্গে না দিয়ে তাদের ভবিষ্যতের উৎসাহ দেয়া যায়।

আমাদের দেশের সারাজীবন মানুষ সব কিছুতে নেগেটিভলি বলে অভ্যস্ত। এবং একটু খারাপ রেজাল্ট নিয়ে শিক্ষার্থীদের অপমান করতে অভ্রস্ত।আর এ কারনেই পরীক্ষায় ফেল করলে বা আশানুরুপ নম্বর না পেলে আমাদের দেশের অনেক ছেলে মেয়েরা লজ্জায় অপমানে আত্মহত্যা করে। বিগত সময়ে অনেক ছেলে মেয়ে এভাবে জীবন দিয়েেছ। এগুলা কি খুব ভালো!!

এবারে পরীক্ষার্থী কয়েক লাখ ছেলে মেয়ে আমাদের কারো না কারো ভাই বোন, সন্তান বা পরিবারের সদস্য। এই ছেলে মেয়েদের নিয়ে ঠাট্টা মসকরা না করলে কি হয়না?

২০২০ এর এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা তো চুরি বা ডাকাতি করেনি, কিংবা কোন অপরাধ করেনি যে তাদের সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে হবে।তাদের ছোট করে অপমান করে কথা বলার সময় তাদের বয়স এবং ইমোশান কে মাথায় রাখা উচিত।

সাংবাদিক  আতিকা রহমান

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০২ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৩০ অপরাহ্ণ
  • ১৮:২৪ অপরাহ্ণ
  • ১৯:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ
bdgaibandha.news©2020 All rights reserved
themesba-lates1749691102